ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন সম্প্রতি ২০১৯ সালের সেরা জনপ্রিয় ১০০ জন ক্রীড়া ব্যাক্তিত্বের নাম প্রকাশ করেছে। খুশির খবর এই যে, তিনজন বাংলাদেশী ক্রিকেটার জায়গা করে নিয়েছেন এই তালিকায়। বাংলাদেশ ক্রিকেটের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান আছেন এই তালিকায়।

আরো আছেন ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ও উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। জনপ্রিয়তার তালিকায় সাকিবের অবস্থান ৯০ নম্বরে। মুশফিকের ৯২ আর মাশরাফি আছেন ৯৮ নম্বরে।

জনপ্রিয় ক্রিকেটার হিসেবে তালিকায় জায়গা পাওয়া সাকিবকে তুলে ধরা হয়েছে ক্রিকেটের একজন প্রতিবাদী ব্যাক্তিত্ব হিসেবে। উদাহরণস্বরূপ দেখানো হয়েছে আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের জবাবে নিদাহাস ট্রফিতে সাকিবের প্রতিবাদ। এছাড়া, নিদাহাস ট্রফিতে মুশফিকের নাগিন ডান্স সম্বন্ধেও উল্লেখ করা হয়েছে এখানে। আর মাশরাফিকে ইএসপিএন মূল্যায়ন করেছে তার অসাধারণ ব্যক্তিত্ব ও দারুন অধিনায়ক হিসেবে।

এই তালিকা করা হয়েছে মূলত গুগল সার্চে খেলোয়াড়দের অবস্থান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কতজন ফ্যান তাদের অনুসরণ করছেন ও বিজ্ঞাপন থেকে তাদের প্রাপ্ত আয়ের অনুপাত বিবেচনা করে।

৭৮টি দেশের ৮০০ জন ক্রীড়া ব্যাক্তিত্বর উপর করা এই জরিপ থেকে বেছে নেওয়া হয়েছে ১০০ জন জনপ্রিয়তমকে। ১০০ জনের মধ্যে মাত্র ১১ জন ক্রিকেটার এবং এই ১১ জনের মধ্যে ৩ জন বাংলাদেশী। গর্ব করার মতোই একটি বিষয় বাংলাদেশের জন্য।

জনপ্রিয়তায় ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি আছেন শীর্ষ দশে। ১০০ তে সপ্তম স্থান অধিকারে নিয়ে জনপ্রিয়তম ক্রিকেটারও হয়ে আছেন তিনিই। সাকিব, মুশফিক, মাশরাফি আর কোহলি ছাড়াও এই তালিকায় আছেন মহেন্দ্র সিং ধোনী, যুবরাজ সিং, সুরেশ রায়না, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান ও হরভোজন সিং।

উপমহাদেশ সহ বিশ্বের অল্প কিছু দেশে ক্রিকেট জনপ্রিয় হলেও ফুটবলের জনপ্রিয়তা সারা বিশ্ব জুড়ে। আর সেই জনপ্রিয়তার কারণেই সেরা ১০০ জনপ্রিয় ব্যাক্তিত্বের তালিকায় শীর্ষে আছেন সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ তারকা বর্তমান জুভেন্টাস ষ্টার পর্তুগীজ ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। দ্বিতীয় স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন আমেরিকার বাস্কেটবল খেলোয়াড় লেবরন জেমস। বিশ্বের সর্বকালের সেরা ফুটবলারদের মধ্যে অন্যতম হিসেবে বিবেচিত বার্সেলোনার প্রাণভ্রমরা আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি আছেন তিন নম্বরে।