রাঁচিতে সিরিজ বাঁচানো তৃতীয় ওয়ানডেতে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ৩১৩ রান তুলেছিল অস্ট্রেলিয়া। দলের হয়ে এদিন সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ওসমান খাজা।

দুই অজি ব্যাটসম্যান এদিন উদ্বোধনী জুটিতে বড় স্কোর গড়ার ভীত গড়ে দেন। অ্যারন ফিঞ্চ এবং খাজা প্রথম উইকেটে তোলেন ১৯৩ রান। ইনিংসের ৩১.৫ ওভারে কুলদীপের বলে ফিঞ্চ ৯৩ রানে ফিরলে স্বস্তি ফিরে আসে ভারতীয় শিবিরে।

ফিঞ্চ ফিরে গেলেও ঠিকই নিজের সেঞ্চুরি তুলে নেন অন্য ওপেনার ওসমান। দ্বিতীয় উইকেটে ম্যাক্সওয়েলকে সাথে নিয়ে নিজের সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি। দলীয় ২৩৯ রানের পর খাজার উইকেট তুলে নেন সামি। আউট হওয়ার পূর্বে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করার পথে তিনি ১১৩ বল খেল ১০৪ রান করেন।

১৯ রানের ব্যবধানে রান আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান ম্যাক্সওয়েল। ৩১ বল থেকে ৪৭ রানে ইনিংস খেলেন তিনি। এসময় অস্ট্রেলিয়ার হাতে ছিল ৮ ওভার।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে এ সময় বাকিটা পথ পাড়ি দেন স্টানিস ও অ্যালেক্স ক্যারি। স্টনিস ২৬ বল থেকে ৩১ এবং ক্যারি ১৭ বল থেকে ২১ রান নিয়ে অপরাজিত থেকে দলকে তিনশোর ঘর ছাড়িয়ে নিয়ে যান।

ভারতের হয়ে ৬৪ রান দিয়ে কুলদীপ ৩টি উইকেট নেন। একটি উইকেট নেন মোহাম্মদ শামি।

ভারতীয় ইনিংসে কোহলি বাদে বলার মতো রান কেউ করতে পারেননি। শেখর ধাওয়ান ও রোহিত শর্মা ছিলেন বরাবরের মতোই ব্যার্থ। কারণ, এই সিরিজে এই দুই ওপেনারের কেউই আশাব্যাঞ্জক কোনো স্কোর উপহার দিতে পারেননি এখন পর্যন্ত। বরঞ্চ, গত দুই ম্যাচে দুজনেই একবার করে শূন্য রানে আউট হয়েছেন।

ব্যাটসম্যানদের আসা যাওয়ার পথে বিরাট কোহলি একাই যেন হাল ধরে বসে ছিলেন। কিন্তু দলীয় ২১৯ রানে কোহলি আউট হয়ে গেলে ভারতের শেষ আশাটিও যেন ফুরিয়ে যায়। ৯৫ বলে ১৬ বাউন্ডারী আর ১ ছক্কার দারুন এক ইনিংস খেলে ১২৩ রান করেন ভারতীয় অধিনায়ক।

সকলের আশা ছিল নিজের শহরের মাঠে হয়তো ভালো কিছু করে দেখাবেন দারুন ফর্মে থাকা সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। আর মাত্র ৩৩ রান হলেই ষষ্ঠ ভারতীয় হিসেবে ১৭ হাজার ওয়ানডে রানের মাইলফলক অর্জন করতেন ধোনি। কিন্তু, আবারো ধোনিকে দেখা গেলো খুব ধীর গতীতে ব্যাটিং করতে। ৪২ বলে ২ চার আর ১ ছক্কায় ২৬ রান করে জাম্পার বলে আউট হন ধোনি।

৪৮.২ ওভারে ২৮১ রানে অলআউট হয়েছে ভারত। শেষপর্যন্ত ধোনির ঘরের মাঠ রাঁচিতে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ভারত হেরেছে ৩২ রানে। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে কামিন্স, রিচার্ডসন ও জাম্পা ৩ টি করে উইকেট নেন। অন্য উইকেটটি পেয়েছেন লায়ন। ম্যান অফ দা ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন ওসমান খাজা।