নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে হ্যাগলি ওভাল মাঠের খুব কাছে একটি মসজিদে আজ শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা দেড়টার দিকে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে।এতে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়েরা।

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়েরা ওই মাঠে অনুশীলনে করছিলেন। অনুশীলন শেষে তারা মসজিদটিতে জুমার নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন। তবে তারা মসজিদে প্রবেশের আগেই এই হামলার ঘটনা ঘটায় অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড জানিয়েছে, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় বন্দুকধারীর হামলায় অন্তত ৯-২৭ জন নিহত হয়েছেন । এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

তামিম-মুশফিক-মাহমুদউল্লাহদের মানসিক অবস্থার বর্ণনা দিয়েছেন স্থানীয় রেডিও ধারাভাষ্যকার ব্রায়ান ওয়াডেল। স্থানীয় প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডকে তিনি জানান, টিম হোটেলে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে আমি কাঁদতে দেখেছি। তারা এখনো নিশ্চিত নন, ঘটনা কতদূর গড়াবে।

এদিকে, হামলাকারীর পরিচয় পাওয়া গেছে। সে বন্দুকধারী অস্ট্রেলিয়ান ব্রেনটন ট্যারেন্ট। বয়স ২৮ বছর। মসজিদে হামলাকারী ব্রেনটনের কাছে অন্তত একটি সেমি-অটো অস্ত্র এবং বেশ কয়েক ক্লিপ গুলি ছিল। মসজিদে ঢোকার পর এলোপাথারি গুলি চালাতে থাকে হামলাকারী। সে থেমে থেমে গুলি চালাতে থাকে। এসময় বেশ কয়েক দফায় সে বন্দুক রিলোড করেন।

এরপর মসজিদের সামনের দরজা দিয়ে বের হয়ে যান। মসজিদে তিন মিনিট থাকার পর তিনি বের হয়ে যান এবং রাস্তায় গাড়ি চালিয়ে যেতে যেতে এলোমেলোভাবে গুলি চালায়।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত, ২ বাংলাদেশিসহ ২৭ জনের মৃত্যর সংবাদ পাওয়া গেছে।